সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
ঈশ্বরদী রেলওয়ে টিকিট কাউন্টারের সামনে থেকে এক ব্যাক্তির লাশ উদ্ধার পাবনায় স্ত্রী হত্যার অপরাধে ৯ বছর পর স্বামীর ফাঁসির আদেশ মন্তব্যের কাছে থেমে গেছে গন্তব্য : আত্মহত্যা করেছেন ছাত্রকে বিয়ে করা সেই কলেজ শিক্ষকা বিলুপ্তির পথে ঈশ্বরদীর ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় পেট্রোল পাম্পে বিস্ফোরণ: নিহত ২ বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিনে ঈশ্বরদীতে দোলন বিশ্বাসের খাদ্য বিতরণ  বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে ঈশ্বরদীতে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী পালিত ঈশ্বরদীতে আ:লীগের উদ্যোগে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী পালিত সম্মানহানির উদ্দেশ্যে এমপির পিএস রাজন মালিথার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈমের জন্মদিনে তৌহিদুজ্জামান দোলন বিশ্বাসের শুভেচ্ছা

ঈশ্বরদীতে এসেছিলেন বাংলার মি. বিন চরিত্রে জনপ্রিয় রাশেদ শিকদার

ঈশ্বরদী, পাবনা প্রতিনিধি / ৬৭২ বার পঠিত
আপডেট : শনিবার, ২ অক্টোবর, ২০২১, ১১:৫০ অপরাহ্ণ
ছবি: বাংলার মি. বিন সাথে ঈশ্বরদীর দুই তরুন সংবাদকর্মী

বিশ্বের ছোট বড় সকলের কাছেই প্রিয় মুখ ব্রিটিশ কমেডিয়ান মিস্টার বিন। নিজের অঙ্গভঙ্গি দিয়েই সবাইকে বিনোদন দিয়ে থাকেন। স্যুট-বুট পরে পুতুল হাতে মিস্টার বিনের অবিকল চরিত্রে অভিনয় করে যাচ্ছেন বাংলাদেশি এক যুবক। বলছিলাম পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজে বিএসএস দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রাশেদ শিকদারের কথা। হলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা রোয়ান অ্যাটকিনসনেরই (৬৫) যেন প্রতিচ্ছবি ‘বাংলাদেশের মি. বিন’ রাশেদ শিকদার।

শনিবার (২ অক্টোবর) নিজের ব্যাক্তিগত কাজের উদ্দেশ্যে জনপ্রিয় রাশেদ শিকদার ঈশ্বরদীতে এসেছিলেন। একান্ত এক সাক্ষাতকারে দিয়েছেন তার বাংলার মি. বিন হিসেবে পরিচিত হওয়ার গল্প।

রাশেদ মূলত একজন জাদুশিল্পী। তার জাদুর হাতেখড়ি হয় ২০১০ সালে জাদুশিল্পী প্রিন্স আকাশের হাত ধরে। তারপর তিনি অনেকের কাছ থেকেই জাদু শিখেছেন। এরপর তিনি ২০১৭ সাল থেকে বাংলাদেশ টেলিভিশনে (বিটিভি) জাদু বিষয়ক ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘চোখের পলকে’ নিয়মিতভাবে জাদু দেখান।

কিভাবে এই চরিত্রে আসেন এমন প্রশ্নে রাশেদ শিকদার বলেন, ছোটবেলা থেকেই জাদুর প্রতি খুবই আগ্রহ ছিল। প্রথম ২০১০ সালে জাদুশিল্পী প্রিন্স আকাশ এর মাধ্যমে জাদু জগতে পদার্পণ। পরবর্তীতে আশীষ কুমার মন্ডল এবং প্রিন্স আলমগীরসহ অনেকের কাছ থেকেই তালিম নেওয়া হয়েছে। মি. বিন হিসেবে এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে অভিনয়ের থেকেই চেষ্টা শুরু করা।

নিজেকে মিস্টার বিনের চরিত্রে নিয়ে আসার বিষয়ে রাশেদ বলেন, আমি যখন জাদু দেখাতে মঞ্চে উঠে কোট টাই ইত্যাদি পোশাক পড়তাম অনেকেই বলতো যে আমাকে নাকি মিস্টার বিনের মতো দেখায়। আমি কথাগুলো কর্ণপাত করতাম না। হঠাৎ বাংলাদেশের একজন জাদুশিল্পী এম রহমান আমাকে বললেন, রাশেদ তুমিতো জাদুশিল্পী তোমার চেহারার সাথে কমেডি কিং মিস্টার বিনের চেহারার মিল রয়েছে। চাইলে সেটাও চেষ্টা করতে পারো। আশা করি ভালো কিছু হবে। সেই থেকেই চেষ্টা করা।

কেমন সাড়া মিলছে এ বিষয়ে রাশেদ বলেন, সবাই আমাকে মি. বিনের প্রতিকৃতি হিসেবে সাদরে গ্রহণ করেছে। তেমন কোনো বাধা-বিপত্তিতে পড়িনি। খুব ভালো সাড়া পাচ্ছি। ছোট থেকে বড় সবাই আমার চরিত্রটিকে সাদরে গ্রহণ করছে। ব্যাপারটা আমার কাছে খুবই ভালো লাগছে।

ভবিষ্যত পরিকল্পনার বিষয়ে রাশেদ জানান, বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে অধিকাংশ জায়গাতেই অসুস্থ বিনোদন চারদিকে ছেয়ে গেছে। আমি সুস্থ ধারার বিনোদন নিয়ে কাজ করতে চাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Bengali Bengali English English Russian Russian
error: Content is protected !!
Bengali Bengali English English Russian Russian
error: Content is protected !!