বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
ঈশ্বরদীতে অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে রেলের অভিযান একদিন পর রূপপুর রেলস্টেশন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী পেরিয়ে গেছে ৭১ বছর-এখনো রয়ে গেছে খাজা নাজিম উদ্দিনের নাম রুপপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদীতে তিনদিনব্যাপী নিটল-নিলয় এক্সপ্রেস টাটা গাড়ির মেলার উদ্বোধন পৃথক অভিযানে ১৮২৯ পিচ ইয়াবা সহ বিপুল পরিমাণ গাঁজা উদ্ধার গ্রেফতার ৩ বেলায়েত খান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক-সভাপতির বিরুদ্ধে নিয়োগ বানিজ্য ও অর্থ আত্মসাৎ এর অভিযোগ রাজশাহীর জনসভায় প্রধানমন্ত্রীর সাথে রেজাউল রহিম লালের সৌজন্য সাক্ষাত ঈশ্বরদীতে একদিনে ৭ দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি ঈশ্বরদীতে শেখ কামাল আন্ত:স্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ঋণ খেলাপির অভিযোগে ঈশ্বরদীর ১২ কৃষক কারাগারে

ঈশ্বরদী, পাবনা প্রতিনিধি / ৩৪৭ বার পঠিত
আপডেট : শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২২, ৯:৩০ অপরাহ্ণ

ঋণ নিয়ে ফেরত না দেওয়ায় পাবনার ঈশ্বরদীতে গ্রেফতার ১২ প্রান্তিক কৃষককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) বিকেলে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া বেগম তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গ্রেফতাররা হলেন- উপজেলার ছলিমপুর ইউনিয়নের ভাড়ইমারি গ্রামের মৃত সোবহান মণ্ডলের ছেলে আবদুল গণি মণ্ডল (৫০), মৃত আয়েজ উদ্দিনের ছেলে সামাদ প্রামাণিক (৪৩), শুকুর প্রামাণিকের ছেলে আলম প্রামাণিক (৫০), মনিরুলের ছেলে মাহাতাব মণ্ডল (৪৫), কামাল প্রামাণিকের ছেলে শামীম হোসেন (৪৫), মৃত সামির উদ্দিনের ছেলে নূর বক্স (৪৫), মৃত আখের উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ আতিয়ার রহমান (৫০), রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ আকরাম (৪৬), লালু খাঁর ছেলে মোহাম্মদ রজব আলী (৪০), মৃত কোরবান আলীর ছেলে কিতাব আলী (৫০), মৃত আবুল হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ মজনু (৪০) ও হারেজ মিয়ার ছেলে হান্নান মিয়া (৪৩)।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, সমবায় ব্যাংক থেকে ৩৭ জন কৃষক ২৫-৩০ হাজার টাকা করে ঋণ নিয়েছিলেন। এই ঋণ সুদসহ ফেরত না দেওয়ায় ২০২১ সালে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। পরে আদালত পরোয়ানা জারি করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১২ জনকে গ্রেফতার করে।

কৃষক উন্নয়ন সোসাইটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান ময়েজ বলেন, যে অভিযোগে কৃষকদের গ্রেফতার করা হয়েছে এটি সঠিক নয়। ঋণের টাকা কৃষকরা বহু আগে পরিশোধ করেছেন। পরিশোধের রশিদ তাদের কাছে আছে।

তিনি আরও জানান, দেশে হাজার কোটি টাকা ঋণ নিয়ে অনেকে খেলাপি হয়ে আছেন। কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি আদেশ জারি হয় না। তারা গ্রেফতার হন না। অথচ কৃষকের সামান্য কয়েক হাজার টাকা ঋণ পরিশোধের পরও মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। কৃষকদের অকারণে গ্রেফতার ও কারাগারে পাঠানোয় নিন্দা জানাচ্ছি।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার জানান, গ্রেফতার কৃষকদের দাবি, সব ঋণের টাকা তারা পরিশোধ করেছেন। এরপর কেন মামলা হলো সেটি তারা জানেন না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Bengali Bengali English English Russian Russian
error: Content is protected !!
Bengali Bengali English English Russian Russian
error: Content is protected !!